‘স্বপ্ন’ নিয়ে কিছু চমকপ্রদ তথ্য-এবং স্বপ্নের তাৎপর্য

2993

দৈনন্দিন জীবনে নানা ঘাত-প্রতিঘাতের আবর্তে মানুষ তার সময়গুলোকে অতিবাহিত করে। এই সময়গুলো মানুষের কল্পনাতে আসে  স্বপ্ন হয়ে কখনো তা হতে পারে মধুর আবার কখনো তা হতে পারে ভয়াবহ দুঃস্বপ্ন। স্বপ্ন হলো মানুষের এমন একটি মানসিক অবস্থা এবং ধারাবাহিক কতগুলো ছবি ও আবেগের সমষ্টি যাতে মানুষ ঘুমন্ত অবস্থায় বিভিন্ন কাল্পনিক ঘটনা অবচেতনভাবে অনুভব করে থাকে। স্বপ্ন সম্বন্ধে অনেক দর্শন, বিজ্ঞান, কাহিনী ইত্যাদি আছে। স্বপ্নবিজ্ঞানের ইংরেজি নাম Oneirology.

১৯৪০-১৯৮৫ সাল পর্যন্ত ক্যালভিন এস হল পঞ্চাশ হাজারেরও বেশি স্বপ্ন সম্বন্ধীয় প্রতিবেদন সংগ্রহ করেন এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওহাইয়োতে অবস্থিত কেইস ওয়েস্টার্ন রিজার্ভ ইউনিভার্সিটিতে পেশ করেন। দ্য কন্টেন্ট এনালাইসিস অফ ড্রিমস নামে ১৯৬৬ সালে হল এবং ভ্যান দ্য ক্যাসল  একটি গ্রন্থ প্রকাশ করেন। গ্রন্থে তাঁরা কোডিং পদ্ধতির মাধ্যমে এক হাজার কলেজ ছাত্রের স্বপ্নের প্রতিবেদনে দেখিয়েছেন যে, সমগ্র বিশ্বের জনগণ সাধারণত একই ধরনের বিষয় নিয়ে স্বপ্ন দেখে।

স্বপ্ন সম্পর্কে মানুষের সাধারণ জিজ্ঞাসাগুলো এবং স্বপ্নের অর্থ সমূহ আমরা তুলে আনার চেষ্টা করেছি বঙ্গ ভান্ডারে ।

12 মানুষ কি চাইলে নিজের স্বপ্ন নিয়েই নিয়ন্ত্রণ করতে পারে?

-পারে। এই পদ্ধতিকে বলা হয় ‘লুসিড ড্রিমিং’, পদ্ধতিতে মানুষ চাইলেই নিজের স্বপ্নকে নিয়ন্ত্রন করতে পারে। এই পদ্ধতিতে মানুষ তার স্বপ্নের ঘটনা এবং শেষ পরিণতিও নিয়ন্ত্রণ করে ফেলতে পারে। সব সময় স্বপ্ন নিয়ন্ত্রণ করা যায় না বিশেষ করে ঘুম বেশি গভীর অবস্থায় থাকলে ।

11 স্বপ্নের ১০ শতাংশই আমরা মনে রাখতে পারি

ঘুম থেকে ওঠার পর স্বপ্নের খুবই ক্ষুদ্র একটা অংশই আমরা মনে রাখতে পারি । বলতে পারেন স্বপ্নের ৯০ শতাংশই আমরা ভুলে যাই । আর এটি ঘটে প্রায় ঘুম থেকে জেগে ওঠার পাঁচ মিনিটের মধ্যেই । এবং এটাই স্বাভাবিক ।

10অন্ধ মানুষেরাও কি স্বপ্ন দেখে?

জন্মান্ধ এবং জন্ম পরবর্তী যারা অন্ধ হন তারা উভয়েই স্বপ্ন দেখেন । তবে তাদের উভয়ের ক্ষেত্রে কিছু পার্থক্য আছে ।

 পার্থক্য-১: যারা জন্মান্ধ তারা সপ্নে কোন ছবি দেখেন না ।  তাদের স্বপ্ন হয় শব্দ, গন্ধ, স্পর্শ এবং অনুভুতির সংমিশ্রণ ।

 পার্থক্য-২: যারা জন্ম পরবর্তী যারা অন্ধ হয়ে যায়  তারাও অন্যান্য স্বাভাবিক মানুষের মত স্বপ্নে ছবি দেখেন।

9 স্বপ্নে আমরা শুধুমাত্র পরিচিত মুখগুলোই দেখি

যাদের জীবনে আমরা অন্তত একবারের জন্য হলেও দেখেছি স্বপ্নে শুধুমাত্র সেই মুখগুলোই দেখি । অবাক হচ্ছেন ? প্রতিদিন রাস্তায়, অফিসে বা পর্দায়  কত মানুষের মুখ দেখেন, তাদের মনে রাখার প্রয়োজন হয়তো আপনি বোধ করেন না । কিন্তু আপনার অবচেতন স্বত্বা সেগুলোকে ঠিকই স্মৃতি ভান্ডারে সংরক্ষণ করে রাখে ।

8রঙিন স্বপ্ন

১২ শতাংশ মানুষ সাদা-কালো স্বপ্ন দেখেন, বাকি সবাই জীবনে কোন না কোন সময়ে রঙিন স্বপ্ন দেখেছেন বা দেখেন। কিন্তু ১৯১৫-১৯৫০ সাল পর্যন্ত চলা গবেষণাগুলোতে দেখা গিয়েছে অধিকাংশ মানুষই সাদা-কালো স্বপ্ন দেখেন । উল্লেখ করার মত বিষয় হলো ১৯৬০ সালের পর থেকে গবেষণার এই ফলাফলে পরিবর্তন আসতে শুরু করে এবং এখন শুধুমাত্র ৪.৪ শতাংশ মানুষ (যাদের বয়স ২৫ বছরের কম) সাদা-কালো রঙের স্বপ্ন দেখেন।

তাহলে ১৯৬০-এর পর এমন মানুষের মধ্যে এমন কি পরিবর্তন হয়েছে যে হঠাৎ করে তারা রঙিন স্বপ্ন দেখতে শুরু করল?

 

7এক রাতের ঘুমে আপনি ৪টি থেকে ৭টি স্বপ্ন দেখেন

যদিও আমরা ভাবি সারারাতে আমরা একটি মাত্র স্বপ্ন দেখেছি,প্রকৃতপক্ষে আমরা ৪টি থেকে শুরু করে ৭টি পর্যন্ত স্বপ্ন দেখে ফেলি।  এবং সে কারনেই আমাদের মাঝে মাঝে মনে হয় স্বপ্ন হঠাৎ পরিবর্তন হয়ে গেছে। একজন মানুষ গড়ে বছরে ১৪৬০টি স্বপ্ন দেখে । এবং গড়পড়তা একজন মানুষ তার জীবনের ছয় (৬) বছর স্বপ্ন দেখে কাটিয়ে দেয় ।

6প্রাণীরাও কি স্বপ্নে দেখে

কৌতুহলী এ প্রশ্নের জবাব যদি জানতে চান তাহলে ব্রেইন ওয়েভ নিয়ে ঘাটাঘাটি করার পরিবর্তে আপনার পোষা প্রাণীটিকে ঘুমন্ত অবস্থায় খেয়াল করুন, দেখবেন সেটি ঘুমন্ত অবস্থায় থাবা নাড়ায়, মুখে শব্দ করে বা এমন কোন ভঙ্গি করে যা দেখে মনে হতে পারে সে কারও সাথে পাল্লা দিচ্ছে।

5স্বপ্ন দেখা অবস্থায় শারীরিক অসাড়তা

ঘুমের যে সময়টায় আপনি স্বপ্ন দেখেন তখন আপনার মস্তিষ্কের একটি অংশ শরীরকে কিছুটা অসাড় করে দেয় যাতে স্বপ্নে আপনার নড়াচড়াগুলো প্রকৃত শরীরের উপর কোন প্রভাব না ফেলে। অর্থাৎ স্বপ্নে আপনি এক জায়গা থেকে হেঁটে আরেক জায়গায় চলে যাচ্ছেন খুব সহজেই কিন্তু আপনার দেহ বিছানায় যেভাবে শুয়ে ছিল সেভাবেই আছে, এটা সম্ভব হচ্ছে কেবল মস্তিষ্কের সে অংশের মাধ্যমে যা আপনার দেহকে অসাড় করে রাখে কিন্তু এটা ততক্ষন পর্যন্তই চলে যতক্ষণ আপনার মস্তিষ্কের সে অংশটি জেগে থাকে। তবে কিছু নাটকীয় স্বপ্ন দেখার সময় মানুষ ভয় পেয়ে হাত পা ছোঁড়াছুড়ি করে এবং অনেক সময় নিজেকে নিজেই আঘাত করে আহত হয়।

4পুরুষ এবং নারীর স্বপ্ন আলাদা

প্রচলিত ধারণাগুলোর মধ্যে একটি অন্যতম ধারণা হলো পুরুষরা হয়ত স্বপ্নে সুন্দরী ললনাদের বেশি দেখে, বা নারীরা হয়ত স্বপ্নে  সুদর্শন ছেলেদেরই বেশি দেখে। কিন্তু গবেষণা পর্যালোচনায় দেখা গেছে পুরুষের স্বপ্নের ৭০ শতাংশ জুড়ে রয়েছে অন্য পুরুষ চরিত্র। তবে নারীদের বেলায় দেখা গেছে নারী এবং পুরুষ উভয় চরিত্রের উপস্থিতি সমান। হরমোনগত কারণে গর্ভবতী মহিলারা অন্যান্য নারীদের চেয়ে স্বপ্ন বেশি মনে রাখতে পারে ।

3স্বপ্ন ভবিষ্যৎ সম্পর্কে ধারনা দেয়

স্বপ্নে ভবিষ্যৎ সম্পর্কে ধারনা পাওয়ার বিষয়টি আমরা অনেকেই বিশ্বাস করি। স্বপ্ন নিয়ে একটি গবেষণায় অংশ গ্রহণকারীদের মধ্য থেকে ১৮-৩৮ শতাংশ পর্যন্ত দাবি করেছেন যে তারা জীবনে অন্তত একবার হলেও স্বপ্নে ভবিষ্যৎ সম্পর্কে ধারনা পেয়েছেন এবং ফলাফলে দেখা যায় জরিপভেদে ৬৩ থেকে ৯৮ শতাংশ মানুষ এই কথায় বিশ্বাস করেন।

2নাক ডাকা অবস্থায় স্বপ্ন দেখা যায় না

যদিও এই কথার বৈজ্ঞানিক ভিত্তি খুঁজে পাওয়া যায়নি তা সত্বেও ইন্টারনেটে প্রচলিত সংবাদের ওপর ভিত্তি করে দেখা যায় এই ধারণাটিকে মানুষ চিরন্তন সত্য হিসেবে ধরে নিয়েছে ।

1শিশুদের স্বপ্ন জগত

 জন্মের  ৩ থেকে ৪ মাস বয়স হতে শিমুরা স্বপ্ন দেখা শুরু করে তা সত্বেও  শিশুরা স্বপ্নে ৩ বছর বয়সের আগে নিজেদের কে দেখতে পায় না । শিশুরা সাধারণত দুঃস্বপ্ন বেশি দেখে । ২ বছর বয়স অব্দি শিশুরা ঘুমের প্রায় ৪০ শতাংশ সময় কাটায় । বয়স বাড়ার সাথে সাথে স্বপ্ন দেখার প্রবণতা কমতে থাকে ।

স্বপ্ন হচ্ছে অবদমিত মনের প্রতিফলন যা মানুষের নিকট একটি প্রতীকি রুপ ব্যবহার করে । সাধারণ মানুষের পক্ষে স্বপ্নের অর্থ বোঝা সম্ভব নয় । তা সত্বেও স্বপ্নের অর্থ সংক্রান্ত নিম্নোক্ত বিষয়গুলো বর্তমান বিশ্বে সর্বাধিক পরিচালিত ।

যৌনতা:যদি স্বপ্নে কারও সঙ্গে নিজেকে যৌনতা বা ঘনিষ্ঠ অবস্থায় দেখেন বুঝবেন আপনি নিঃসঙ্গ বোধ করছেন। আর যদি পরিচিত কেউ স্বপ্নে আসে বুঝবেন তাড়াতাড়ি সঙ্গী পাওয়া দরকার। ক্যালভিন এস হল তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায় যে, যৌবনে মানুষের মোট স্বপ্নের ১০ শতাংশের বেশী যৌন বিষয়ে হয় না।

সাপ: আপনি কাউকে শত্রু ভাবছেন। অথবা সাপ মেরে ফেলতে দেখা মানে শত্রুকে পরাস্ত করতে পারবেন। সাদা সাপ স্বপ্নে এলে সেটা সৌভাগ্য ও বংশবৃদ্ধির লক্ষণ বলে বিবেচিত ।

মাছ:এটাকে সৌভাগ্যের লক্ষণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। বিশেষ করে যদি স্বপ্নে যদি মাছ ধরেন, তাহলে অর্থপ্রাপ্তি হবে। আর মাছ ফস্কে গেলে টাকা এসেও ফস্কে যাবে।

গাছ: বাগানে ফলে ভরা গাছ তবে ধনসম্পত্তি লাভ। আর গাছ থেকে নিজেই ফল পাড়ছেন দেখলে বুঝবেন নগদ অর্থ প্রাপ্তি হবে।

গরু:স্বপ্নে যদি দেখেন আপনার নিজের গরু রয়েছে তার মানে ধনসম্পত্তি প্রাপ্তি হবে। আর গরু মৃত হত তাহলে সম্পদ হাতছাড়া হবে।

বিড়াল:স্বপ্নে বিড়াল দেখার অর্থ আপনাকে সাবধান হতে হবে। বাড়িতে চুরির সম্ভাবনা থাকে । তবে বিড়ালকে যদি কোলে বসে থাকতে দেখেন তবে সন্তানলাভ হয়।

নগ্নতা: স্বপ্নে যদি নিজেকে নগ্ন অবস্থায় দেখেন তবে সেটা সম্মানহানির আভাস হিসেবে বিবেচিত হয়। অন্য কাউকে নগ্ন দেখার অর্ আপনার কাছে তার সম্মানহানি হবার সম্ভাবনা ।

আগুন: আপনার মনের মধ্যে কোনও বিপদের ভয় থাকলেও এমন স্বপ্ন দেখতে পারেন। আগুনের স্বপ্ন দেখলে আপনার শরীর খারাপ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে, বিশেষ করে পেটের গোলমাল।

পতন:আপনি কর্মক্ষেত্র হতাশায় ভুগছেন, মন বিষণ্ণতায় ভুগছে। উপর থেকে নীচে পড়ে যাওয়ার অর্থ কোনও কিছুতে অবনতি হবে।

জলে ডুবে যাওয়া: মনে অবসাদ আছে,বিপদের ভয় আছে। হ্যা তবে নিজেকে যদি বৃষ্টিতে ভিজতে দেখেন তবে নতুন কিছু পেতে পারেন ।

নিজ দায়িত্বে বিশ্বাস করবেন । কারণ সমাজে স্বপ্ন নিয়ে এই ধরণের ধারণাগুলো বেশ প্রচলিত । ইহার কোন বৈজ্ঞানিক ভিত্তি আমি পাইনি ।

স্বপ্ন বিষয়ে যদি আপনার কাছে কোন চমকপ্রদ বা বিষ্ময়কর তথ্য থাকে অবশ্যই শেয়ার করতে ভুলবেন না । আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে ক্লিক করুন এখানে । 

2 COMMENTS

  1. thank you for this informative post. lucid dreaming is a wonderful thing. now i am learning how to control dream. waiting for next episode….

  2. আমার কাছে পোষ্টটা অনেক ভাল লেগেছে। বিশেষ করে পশুদের স্বপ্ন দেখার বিষয় টা। স্বপ্নে র অর্থ নিয়ে আরও কিছু বিষয় যানতে ইছুক।

LEAVE A REPLY